‘হাওয়া’র বি'রুদ্ধে ২০ কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ মা'মলা

বন্যপ্রা'ণী (সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা) আইন-২০১২ লঙ্ঘনের অ'ভিযোগে ২০ কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ চেয়ে আ'লোচিত চলচ্চিত্র হাওয়া’র পরিচালক মিসবাউর রহমান সুমনের নামে মা'মলা করেছে বন বিভাগের বন্যপ্রা'ণী অ'প'রাধ দমন ইউনিট।

‘হাওয়া’ সিনেমায় বন্যপ্রা'ণী শালিক পাখি খাঁচায় আ'ট'ক দেখানো ও তাকে হ'ত্যা করে খাওয়ার দৃশ্য থাকায় এই মা'মলা করা হয়।

বুধবার (১৭ আগস্ট) ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আ'দালতে মা'মলা'টি করা হয়। বন বিভাগ ও আ'দালতের একাধিক সূত্র এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আ'দালত সূত্রে জানা গেছে, বন্যপ্রা'ণী সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা আইন-২০১২ এর ধারা ৩৮ (১-২), ৪১ ও ৪৬ লঙ্ঘনের অ'ভিযোগে মা'মলা করেছে বন্যপ্রা'ণী অ'প'রাধ দমন ইউনিট। মা'মলায় বাদী হয়েছেন বন্যপ্রা'ণী পরিদর্শক নারগিস সুলতানা। সাক্ষী করা হয়েছে ত'দন্ত কমিটিতে কাজ করা অ'পর তিন সদস্য- আব্দুল্লাহ আস সাদিক, অসীম মল্লিক ও রথিন্দ্র কুমা'র বিশ্বা'সকে।

গত ২৯ জুলাই চলচ্চিত্রটি মুক্তি পায়। মুক্তির পর একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত চলচ্চিত্রটির রিভিউতে জানা যায়, এই চলচ্চিত্রে একটি পাখিকে হ'ত্যা করে চিবিয়ে খেয়েছেন অ'ভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী। বিস্তারিত বর্ণনা করে বলা হয়, মাছ ধ'রা বোট নয়নতারার সরদার চান মাঝি একটা পাখি পোষে। নিজে পানি পানের সময় পাখির খাঁচায়ও সে পানি ঢেলে দেয়। নিয়ম করে খেতে দেয় পাখিটিকে। আবার পথ হারিয়ে এই শালিককে উড়িয়ে দেয় সে। পোষা পাখির ফিরে না আসায় আশা খোঁজে। তারপর পাখি ফিরে আসে। সেটিকে পুড়িয়ে উদরস্থ করতেও সময় লাগে না চানের। হলভর্তি দর্শক চোখমুখ কুঁচকে ‘চান’ চরিত্রে চঞ্চল চৌধুরীর চিবিয়ে চিবিয়ে পোষা পাখির হাড়-মাংস খাওয়া দেখেন। তীব্র রোমাঞ্চ আর ঘৃ'ণা নিয়ে তাকান। দৃশ্যটি তাদের মা'থায় গেঁথে যায় অনেক দিনের জন্য।

রিভিউ প্রকাশের পর হাওয়া চলচ্চিত্রে একটি শালিক পাখিকে খাঁচায় আ'ট'কে রাখা ও এক পর্যায়ে হ'ত্যা করে খাওয়ার দৃশ্য দেখানোর মাধ্যমে বন্যপ্রা'ণী আইন লঙ্ঘন হয়েছে বলে অ'ভিযোগ তুলেন প্রেক্ষাগৃহ ফেরত দর্শকরাও। তারপর গত ১০ আগস্ট এ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে বিবৃতি দেয় দেশে পরিবেশ নিয়ে কাজ করা ৩৩টি সংগঠনের সমন্বিত প্রয়াস বাংলাদেশ প্রকৃতি সংরক্ষণ জোট (বিএনসিএ)। এর পরদিন প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে চলচ্চিত্রটি দেখে আইন লঙ্ঘনের প্রমাণ মিলেছে বলে নিশ্চিত করেন বন অধিদফতরের গঠিত ত'দন্ত কমিটির সদস্যরা।

সান মিউজিক অ্যান্ড মোশন পিকচার্স লিমিটেডের অধীনে প্রযোজিত এবং ফেসকার্ড প্রোডাকশনের অধীনে নির্মিত চলচ্চিত্রটিতে অ'ভিনয় করেছেন চঞ্চল চৌধুরী, নাজিফা তুষি, শরিফুল রাজ, সুমন আনোয়ার, সোহেল মণ্ডল, নাসির উদ্দিন খান, রিজভী রিজু প্রমুখ।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!