৯৯৯-এ ফোন, হাওরে ডা'কাতের কবল থেকে রক্ষা পেল ১৪ শিক্ষার্থী

কি'শোরগঞ্জের হাওরে ঘুরতে গিয়ে ডা'কাতের কবল পড়েছিলেন ১৪ জন শিক্ষার্থী। জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ ফোন করে রক্ষা পান তারা। শুক্রবার (১৯ আগস্ট) বিকালে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ভুক্তভোগী এক শিক্ষার্থী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করলেও বিস্তারিত কিছু বলতে রাজি হননি। পরে চামড়াঘাট নৌ-পু'লিশ ফাঁড়ির এএসআই মোহাম্ম'দ এনামুল হক জানান, গত রাত ১২টার দিকে হাওর থেকে শিক্ষার্থীদের উ'দ্ধার করে নিরাপদে কি'শোরগঞ্জ পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।

চামড়াঘাট নৌ-পু'লিশ ফাঁড়ি সূত্রে জানা যায়, গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরের পর ১৪জন শিক্ষার্থী হাওরের অলওয়েদার সড়কে ঘুরতে যান। তারা করিমগঞ্জের বালিখলা থেকে ট্রলার ভাড়া করে মিঠামইনে নেমে অলওয়েদার সড়কে বেড়াচ্ছিলেন। সন্ধ্যার পর সেখান থেকে ফেরার পথে প্রচণ্ড বাতাসে হাসনপুর সেতুর সন্নিকটে রাত ৯টার দিকে তাদের ট্রলার আ'ট'কে যায়। বিষয়টি বুঝতে পেরে এ সময় ডা'কাত দল তাদের ঘিরে ফেলার চেষ্টা করে। তখন শিক্ষার্থীদের কেউ একজন ৯৯৯-এ ফোন করে পু'লিশের সাহায্য চায়। এএসআই মোহাম্ম'দ এনামুল হকের নেতৃত্বে পু'লিশের একটি দল দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছালে ডা'কাত দল সেখান থেকে সরে পড়ে।

এনামুল হক জানান, শিক্ষার্থীদের একটি দল হাওরে আ'ট'কে আছে সংবাদ পাওয়ার পর আমি তাৎক্ষণিকভাবে চারজন কনস্টেবল নিয়ে ঘটনাস্থলে যাই। পু'লিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডা'কাত দল পালিয়ে যায়। এ সময় ভ'য়ে পানিতে পড়ে যাওয়া দুজন শিক্ষর্থীকে উ'দ্ধার করা হয়। ট্রলারে মোট ১৪ জন শিক্ষার্থী ছিলেন। এদের মধ্যে ১২ জন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছা'ত্রী এবং দুজন কি'শোরগঞ্জ গুরুদয়াল সরকারি কলেজের ছাত্র।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!