এক ডুবে পানির নিচে ৫২ মিনিট থাকতে পারে নাঈম!

কোনো কিছুর সাহায্য ছাড়া এক ডুবে পানির নিচে প্রায় এক ঘণ্টা থাকতে পারে নাঈম নামের বিস্ময়কর এক যুবক। এছাড়া একটানা ১৬ কিলোমিটার পর্যন্ত দৌড়াতে পারে নাঈম ইস'লাম হাওলাদার নামে ১৯ বছরের এ যুবক। ইতোমধ্যে তার বিস্ময়কর এমন কাজের জন্য সাড়া পড়ে গেছে চারপাশে। নাঈম ইস'লাম হাওলাদার পিরোজপুরের ইন্দুরকানী উপজে'লার পত্তাশী এলাকার রফিকুল ইস'লাম হাওলাদারের ছে'লে।

সম্প্রতি নাঈমের পুকুরে ডুব দিয়ে ৫০ মিনিট থাকার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় তাকে নিয়ে শুরু হয় চাঞ্চল্য। পানির নিচে ডুব দিয়ে থাকা, একাধারে দীর্ঘপথ দৌড়ানো ছাড়াও নাঈম আয়ত্ত করেছে নানা শারীরিক কসরত। সপ্তম শ্রেণি পর্যন্ত পড়ালেখা করা ১৯ বছর বয়সের যুবক নাঈম ইস'লাম হাওলাদার। তাদের রাইস ও মসলার মিলের দেখাশোনা করে। ছোট বেলা থেকেই দীর্ঘ সময় শ্বা'স ধরে রাখার শখ ছিল নাঈমের।

এ জন্য মাঝে মধ্যে সে পানিতে ডুব দিয়ে অনেক সময় অবস্থানও করত। একদিন বন্ধুদের সামনে পানিতে ডুব দিয়ে প্রায় ৫০ মিনিট ছিল পানির নিচে। তার এ ডুবে থাকার ঘটনা বন্ধুরা ভিডিও করে ছেড়ে দেয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। এরপর স্থানীয়রা সম্প্রতি পত্তাশী বাজার ম'সজিদ সংলগ্ন পুকুরে নাঈমের পানির নিচে ডুবে থাকা এলাকাবাসীকে দেখানোর আয়োজন করে। সেদিন নাঈমের পানির নিচে ডুব দিয়ে থাকার দৃশ্য দেখতে পুকুর পাড়ে ভিড় জমায় স্থানীয় জনকল্যাণ মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও কলেজের শিক্ষার্থীসহ শত শত মানুষ।

সেদিন নাঈম পানির নিচে এক ডুবে ছিল ৫২ মিনিট। পানিতে ডুব দেয়ার আগে পুকুরে চারটি বাঁশের টুকরো আ'ট'কে নিতে দেখা গেছে তাকে। দীর্ঘ সময় পানিতে ডুব দিয়ে থাকার পাশাপাশি এক নাগাড়ে ১৬ কিলোমিটার পর্যন্ত দৌড়াতে পারে এ যুবক। এ ছাড়া বাদুরের মতো করে উল্টো হয়ে শুধুমাত্র পায়ের পাতা দিয়ে নিজেকে গাছের কা'ণ্ডের সাথেও আ'ট'কে রাখতে পারে সে। এমনকি তিন তলা ভবনের ছাদ থেকে লাফ দিয়েও অক্ষত আছে এ যুবক। তবে নাঈমের এসব কার্যকলাপে চিন্তিত তার পরিবার। তাদের আশ'ঙ্কা এসব করতে গিয়ে দুর্ঘ'টনা ঘটতে পারে যে কোনো সময়।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!