আ'ন্দোলন প্রত্যাহার, আগের ১২০ টাকা মজুরিতেই কাজে ফিরছেন চা-শ্রমিকরা

অবশেষে কর্মবিরতি প্রত্যাহার করে আগের মজুরিতেই কাজে ফিরছেন চা-শ্রমিকরা। আজ সোমবার ২২ আগস্ট সকালে গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন শ্রমিক ইউনিয়নের ভা'রপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক নৃপেন পাল। তিনি বলেন, রবিবার রাতে জে'লা প্রশাসকের সঙ্গে আমাদের বৈঠক হয়। বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সে যু'ক্ত ছিলেন। তার আশ্বা'সে ধ'র্মঘট প্রত্যাহার করে ১২০ টাকা মজুরিতে সোমবার থেকে শ্রমিকরা কাজে যোগ দেবেন। পরে প্রধানমন্ত্রী মজুরির বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেবেন।

এদিকে নৃপেন পাল বলেন, বৈঠকে দুর্গাপূজার আগে শ্রমিক নেতারা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে সংযু'ক্ত হওয়ার জন্য আবেদন করবেন। শ্রমিকদের অন্যান্য দাবিসমূহ লিখিত আকারে জে'লা প্রশাসকের কাছে দাখিল করবেন। জে'লা প্রশাসক সেগুলো প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠাবেন। বাগান মালিকরা প্রচলিত প্রথা অনুযায়ী ধ'র্মঘট'কালীন মজুরি শ্রমিকদের পরিশোধ করবেন বলে সিদ্ধান্ত হয়।

এ বিষয়ে জে'লা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান বলেন, শ্রমিকরা প্রধানমন্ত্রীর ওপর আস্থা রেখে কর্মসূচি প্রত্যাহার করেছেন। সোমবার সকাল থেকে তারা কাজে ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সভায় পু'লিশ সুপার মোহাম্ম'দ জাকারিয়া, বিভাগীয় শ্রম অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. নাহিদুল ইস'লাম, বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার শীর্ষ কর্মক'র্তাসহ চা-শ্রমিক ইউনিয়নের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে গত ২০ আগস্ট শ্রীমঙ্গলে বিভাগীয় শ্রম দপ্তরের চা-শ্রমিকদের সঙ্গে বৈঠক হয়। সেখানে শ্রমিকদের দৈনিক মজুরি ২৫ টাকা বাড়িয়ে ১৪৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়। এরপর চলমান কর্মবিরতি প্রত্যাহারের কথা জানান শ্রমিক নেতারা। কিন্তু সাধারণ শ্রমিকদের চাপে এ সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করে শ্রমিক ইউনিয়ন।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!