ইউটিউব ভিডিও করতে ‘কবরে’ এক রাত কা'টালেন যুবক

বগুড়ার শাহাজাহানপুরে চাঞ্চল্যকর এক ঘটনা ঘটিয়েছে দুই ভাই। ইউটিউবের জন্য ভিডিও তৈরি করতে কবর খুঁড়ে রাত কা'টানোর অ'ভিযোগ উঠেছে ছোট ভাইয়ের বি'রুদ্ধে। ওই যুবকের নাম রনি। তিনি চাঁপাইনবাবগঞ্জ পলিটেকনিকের ছাত্র। এতে সহায়তা ও ভিডিও করেন তারই বড় ভাই। এ ঘটনা স্থানীয়দের মাঝে ছড়িয়ে পড়ার পর দুজনকে আ'ট'ক করেছে পু'লিশ। উপজে'লার আম'রুল ইউনিয়নের রাধানগর গ্রাম থেকে সকাল ১০টার দিকে তাদের আ'ট'ক করা হয়।

আ'ট'ক দুই ভাই হলেন ওই গ্রামের মোকছেদ আলীর ছে'লে মিলন ও মিজানুর রহমান রনি। মিলনের বয়স ২৬, আর রনির ২৪ বছর। দুই ভাইকে সোমবার বিকেলে শাজাহানপুর আমলি আ'দালতে পাঠানো হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে শাজাহানপুর থা'নার এসআই শামীম হাসান জানান, দুই ভাই নিজেদের বাড়ির উঠানেই খবর খনন করেন। রোববার রাত ১১টার দিকে ক্যামেরা ও পানির বোতলসহ রনি কবরে প্রবেশ করেন। তার বড় ভাই মিলন মাটি চাপা দিয়ে কবরের উপরের অংশ ঢেকে ভিডিও ধারণ করেন। অক্সিজেন ও আলো-বাতাস সরবারহ স্বাভাবিক রাখতে তারা কবরের মধ্যে বৈদ্যুতিক বাল্ব এবং একটি ফ্যান লাগিয়েছিলেন।

শামীম হাসান বলেন, ‘সোমবার সকালে বিষয়টি জানাজানি হলে স্থানীয়দের মাঝে চাঞ্চল্যের পাশাপাশি সমালোচনা শুরু হয়। খবর পেয়ে পু'লিশ রনি ও তার বড় ভাই মিলনকে আ'ট'ক করে থা'নায় নিয়ে আসে।’ স্থানীয়রা জানান, রনি দীর্ঘদিন ধরে তার ইউটিউব চ্যানেল নিয়ে কাজ করছেন। এর আগে তিনি টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়া পর্যন্ত পায়ে হেঁটে ভ্রমণ করেছেন।

শাজাহানপুর থা'নার ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, ‘ফৌজদারি কার্যবিধি ১৫১ ধারায় তাদের শাজাহানপুর আমলি আ'দালতে পাঠানো হয়েছে। এর আগে এমন কাজ না করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে তারা পু'লিশ মুচলেকা দিয়েছে। তবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে তাদের আ'দালতের জিম্মায় দেয়া হয়েছে।’

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!