২০ টাকা বকশিস দেওয়ায় মা'রামা'রি, বরসহ ৫ জন কারাগারে

মাত্র ২০ টাকা বকশিস দেওয়া-নেওয়াকে কেন্দ্র করে তুমুল মা'রামা'রির ঘটনা ঘটেছে নীলফামা'রীর ডোমা'রে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে।

জানা গেছে, রোববার রাত সাড়ে ১০টায় উপজে'লার হরিণচড়া ইউনিয়নের জামাতপাড়া এলাকার আজিজুল ইস'লামের মে'য়ে লিমা আক্তারকে বিয়ে করতে আসেন জে'লার জলঢাকা উপজে'লার ধ'র্মপাল তহশিলদারপাড়া এলাকার মৃ'ত মজির উদ্দিনের ছে'লে রবিউল ইস'লাম। এ সময় বরকে মালা পরিয়ে বরণ করে নেয় কনেপক্ষ। স্টেজে বরের সঙ্গে বসার জায়গায় বসতে বকশিস দাবি করে কনেপক্ষের লোক। বরপক্ষ ২০ টাকা বকশিস দেয়।

এদিকে এত কম টাকা বকশিস দেওয়ায় কনেপক্ষ নিতে অ'পারগতা প্রকাশ করে। বরপক্ষের লোকজন বকশিসের পরিমাণ বাড়াতে না চাইলে, দুই পক্ষের মধ্যে কথা-কা'টাকাটির একপর্যায়ে হট্টগোল শুরু হয় এবং তা মা'রামা'রিতে রূপ নেয়। এ ঘটনায় কনের বাবা ডোমা'র থা'নায় খবর দিলে বরসহ পাঁচজনকে আ'ট'ক করেছে পু'লিশ। সোমবার (২২ আগস্ট) দুপুরে তাদের আ'দালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

আ'ট'করা হলেন জলঢাকা উপজে'লার ধ'র্মপাল তহশিলদারপাড়া এলাকার মৃ'ত মজির উদ্দিনের ছে'লে বর রবিউল ইস'লাম (২৫), তার চাচা মনছুর আলী (৫৫), মনছুর আলীর দুই ছে'লে মঞ্জুরুল ইস'লাম (২৩) ও আলীমুল ইস'লাম (২০) এবং রবিউলের নিকটাত্মীয় পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জের সোনাহার নুল্লাপাড়া এলাকার মৃ'ত জহুর আলীর ছে'লে আল আমীন (২৮)।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ডোমা'র থা'নার ভা'রপ্রাপ্ত কর্মক'র্তা (ওসি) মাহমুদ উন নবী জানান, বর ও কনেপক্ষের মধ্যে মা'রামা'রি হলে ৫ জনকে আ'ট'ক করা হয়। বিকেলে আ'দালতের মাধ্যমে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!