‘অনেক আগেই সিনেমা'র নায়িকা হতে পারতাম’

শোবিজে তার পথচলা শুরু মডেলিং দিয়ে। নাচে পারদর্শী, সেই সুবাদে বিভিন্ন নৃত্যানুষ্ঠানেও দেখা যেত। মিউজিক ভিডিওর মডেল হয়েই আলোচনায় আসেন, নজর কাড়েন দর্শকের। নাট'কে আসার পর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। তিনি তানজিন তিশা। এ সময়ের ব্যস্ততা ও অন্যান্য প্রসঙ্গে কথা হয় তার সঙ্গে। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন- জাহিদ ভূঁইয়া

মাত্র ১৫ দিনেই আপনার অ'ভিনীত ‘আই অ্যাম সিঙ্গেল’ নাট'কটি কোটি ভিউ অ'তিক্রম করেছে। অনুভূতি কেমন?

নিঃস'ন্দেহে এটি চ'মৎকার একটি ব্যাপার। আসলে আম'রা তো দর্শকের জন্যই কাজ করি। তাই তারা যখন আমা'র অ'ভিনয় রিসিভ করেন, চ'মৎকার ফিডব্যাক দেন- অবশ্যই ভালো লাগে। গত ৮ আগস্ট সিএমভির ইউটিউব চ্যানেলে ‘আই অ্যাম সিঙ্গেল’ অবমুক্ত হওয়ার পর থেকেই অনেকে নাট'কটি নিয়ে তাদের ভালোলাগার কথা ব্যক্ত করছেন। আমা'র অ'ভিনয়ের পাশাপাশি ভূয়সী প্রশংসা করছেন নির্মাতা জাকারিয়া সৌখিন, অ'ভিনেতা আফরান নিশো ভাইসহ সব কলাকুশলীর।

সাম্প্রতিক সময়ে একাধিক নাট'ক, টেলিছবি এবং ওয়েব সিরিজে অ'ভিনয় করে দর্শক-প্রশংসা কুড়িয়েছেন। একই সময়ে এত কাজ দর্শকের সাড়া পাবে ভেবেছিলেন?

‘রিকশা গার্ল’, ‘চিংকি পিংকি’, ‘লোহার তরী’, ‘অনাকাক্সিক্ষত বিয়ে’সহ আরও কিছু কাজ দর্শকের প্রশংসা কুড়িয়েছে। বর্তমান সময়ের বেশিরভাগ কাজই যাচাই-বাছাই করে হাতে নেওয়া। যেগুলোর গল্প পড়ে মনে হয়েছে, দর্শকের ভালো লাগতে পারে। তার পরও নিজের ধারণা সব সময় সত্যি হবে- এটা নিশ্চিত করে বলা যায় না। কারণ দর্শকের ভালো লাগা, মন্দ লাগা একেকজনের একেক রকম। তাই নানা রকম গল্পে কাজ করলেও দেখে নিই, সেখানে কোনো বিষয় অ'তিরঞ্জিত করে তোলা হয়েছে কিনা। এর পর চেষ্টা করি, অ'ভিনয় দিয়ে চরিত্র বিশ্বা'সযোগ্য করে তোলার। এত কিছুর পর যখন দর্শক বলে, তাদের প্রত্যাশা পূরণ হয়েছে- তখনই সব চেষ্টা সফল মনে হয়।

এখন থেকে কি নিয়মিত ওয়েবে কাজ করবেন?

যত দিন যাচ্ছে, বেশিরভাগ প্রযোজনাই ওয়েবকেন্দ্রিক হয়ে যাচ্ছে। সুতরাং ভালো গল্প ও ভালো পরিচালকের কাছ থেকে প্রস্তাব পেলে নিয়মিতই ওয়েবে কাজ করব।

আর বড়পর্দায়?

চাইলে অনেক আগেই সিনেমা'র নায়িকা হতে পারতাম। প্রস্তাবও পেয়েছি অনেক; কিন্তু নিজেকে অ'ভিনেত্রী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে চেয়েছি সব সময়। সিনেমায় আগ্রহ নেই- এটা বলব না। বড়পর্দায় কাজের ইচ্ছে আছে, তবে এর জন্য চাই ভালো গল্প। এটুকু আশ্বা'স দিতে পারি, কাক্সিক্ষত গল্প ও চরিত্রে কাজের সুযোগ পেলে সিনেমায়ও আমাকে দেখা যাবে।

একটা সময় নিশো ও অ'পূর্বর বিপরীতেই আপনাকে দেখা যেত। বর্তমানে অন্যদের সঙ্গেও কাজ করছেন। এ বিষয়ে আপনার বক্তব্য কী'?

একেক ধরনের গল্পে, একেক ধরনের চরিত্রে একেকজন সহশিল্পীর সঙ্গে কাজ করাটাই স্বাভাবিক। দর্শকের সাড়ায় বুঝতে পারছি, বিষয়টি তারাও উপভোগ করছেন। এই ভেরিয়েশনটা আমি নিজেও উপভোগ করছি।

নাচ দিয়ে মিডিয়ায় যাত্রা শুরু হয়েছিল। এখন নাচের আয়োজনে কম দেখা যায়, কারণ কী'?

নাচের প্রতি ভালো লাগা এখনও আছে; কিন্তু নাচের আয়োজন তো সেভাবে চোখে পড়ে না। জানিনা, এ বিষয়টা কেন এতটা অবহেলিত। তবে যখনই সুযোগ আসে, নাচের কোনো না কোনো আয়োজনে অংশ নিই। গত ঈদে বিটিভির ‘তারার মেলা’ অনুষ্ঠানে কোলাজ গানের নাচে অংশ নিয়েছিলাম। দর্শকের সাড়াও পেয়েছি অনেক।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!