ঝরনা ছেড়ে গোসল নয়, বালতি-মগ কিনুন: প্রধানমন্ত্রী

বিদ্যুৎ, পানি ও জ্বালানির ক্ষেত্রে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ভ'য়াবহ পরিস্থিতির কথা জানিয়ে দেশের সবাইকে এখনই সতর্ক হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার (৩১ আগস্ট) শোকাবহ আগস্ট উপলক্ষে ছাত্রলীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধানমন্ত্রী এই আহ্বান জানান। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

সবাইকে মিতব্যয়ী হওয়ার আহ্বান জানিয়ে সরকারপ্রধান বলেন, ‘বিদ্যুৎ যেন সীমিত আকারে ব্যবহার, যেটুকু লাগবে সেটুকু, না হলে সুইচড অফ করে দিতে হবে। পানি ব্যবহার, সেখানেও মিতব্যয়ী হতে হবে। ওই কল ছেড়ে রেখে, ঝরনা ছেড়ে রেখে গোসল করা চলবে না। সবাইকে বালতি কিনে মগে করে পানি ব্যবহার করতে হবে। এক ফোঁটা পানি যেন অ'পচয় না হয়। পানির জন্য হাহাকার, উন্নত দেশগুলোতে হাহাকার।’

জ্বালানি ব্যবহারে সাশ্রয়ী হওয়ার তাগিদ দিয়ে তিনি বলেন, ‘অহেতুক ঘোরাঘুরি করার দরকার নেই। পায়ে হাঁটলে স্বাস্থ্য ভালো থাকে।’ ইউরোপ-আ'মেরিকাসহ বিভিন্ন উন্নত দেশ অর্থনৈতিক মন্দায় হিমশিম খাচ্ছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের আগে থেকেই সতর্ক থাকতে হবে। ওদের অবস্থায় যেন আমাদের পড়তে না হয়।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘বিশ্বে আরও ভ'য়াবহ অবস্থা হবে, পয়সা দিয়েও খাবার কেনা যাবে না। সেই ক্ষেত্রে আমাদের নিজেদের খাবার নিজেদের উৎপাদন করতে হবে। ছাত্রলীগ ধান কা'টায় যেমন সাহায্য করেছে, ধান রোপণেও সাহায্য করবে।’

যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে জ্ঞান-বিজ্ঞানে এগিয়ে যেতে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। বলেন, ‘এখন প্রযু'ক্তির যুগ, তথ্যপ্রযু'ক্তির যুগ, বিজ্ঞানের যুগ। এরই সঙ্গে তাল মিলিয়ে শিক্ষায়-দীক্ষায় উপযু'ক্ত নাগরিক হিসেবে গড়ে উঠতে হবে। সেভাবে নিজেদের তৈরি করতে হবে। কারণ দেশ চালাতে গেলে শিক্ষার প্রয়োজন আছে। দেশে চালাতে গেলে জ্ঞানের প্রয়োজন আছে। ইতিহাস জানা প্রয়োজন আছে। দূরদৃষ্টিসম্পন্ন হতে হবে।’

ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘একজন রাজনৈতিক নেতা তিনি কিন্তু মন্ত্রিত্ব ছেড়ে দিচ্ছেন সংগঠন করার জন্য। এটা কত বড় একটা ত্যাগ স্বীকার, সেটা তোমাদের মনে রাখতে হবে। তার কারণ আম'রা দেখি দল ছেড়ে আসে মন্ত্রিত্ব পাওয়ার জন্য। আর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব তিনি কিন্তু মন্ত্রিত্ব ছেড়েছিলেন সংগঠনটাকে শক্তিশালী করার জন্য।’

ছাত্রলীগকে ত্যাগের আদর্শ ধারণের পরাম'র্শ দিয়ে তিনি বলেন, ‘চাওয়া-পাওয়ার ঊর্ধে উঠে ত্যাগ স্বীকার করে এগোতে পারলে সঠিক নেতা হিসেবে নিজেকে গড়ে তোলা যায়, কিন্তু গড্ডালিকা প্রবাহের মতো অর্থ-সম্পদের পেছনে ‍ছুটলে, ওই অর্থ সম্পদে ভেসে যেতে হয়; নেতৃত্ব দেওয়ার যোগ্যতা থাকে না, দেশকেও কিছু দেয়া যায় না, মানুষকেও দেয়া যায় না।’

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!