ইডেন কলেজ নিয়ে পোস্ট, ফারুকী'কে অ'ভিভাবকদের চিঠি!

ইডেন কলেজে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সং'ঘর্ষ ও মা'রামা'রির ঘটনায় দেশজুড়ে আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। ছাত্রলীগের নামে চাঁদাবাজি, আসন-বাণিজ্য, ছা'ত্রীদের দিয়ে অ'নৈতিক কাজ করানোসহ নানা ধরনের অ'প'রাধমূলক কর্মকা'ণ্ডের বিষয় নিয়ে তুমুল আলোচনা হচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট দিয়েছিলেন তারকা নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী'। তবে কয়েক ঘন্টা পরই তিনি সেটি মুছে ফেলেন।

বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) ফেসবুকে নিজের ভেরিফায়েড আইডিতে দেওয়া স্ট্যাটাসে পূর্বের পোস্টটি ডিলিট করার কারণ জানিয়েছেন ফারুকী'। পাশাপাশি ঘটনাগুলোর সঠিক ত'দন্ত করে জ'ড়িতদের শা'স্তির দাবি জানান তিনি।

ফারুকী' লিখেছেন, গতকাল (২৭ সেপ্টেম্বর) ইডেন কলেজ নিয়ে পোস্ট দেওয়ার কয়েক ঘন্টা পর আমি সেটা মুছে দেই। আপনারা জানেন, সোশ্যাল মিডিয়া খুব তাৎক্ষণিক একটা মাধ্যম। এখানে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া থাকে বেশি। কিন্তু আজকে একদিন চিন্তা করার পর আমি এই বিষয়ে আরেকটু গুছিয়ে কথা বলতে চাচ্ছি। কারণ এটা খুবই সিরিয়াস একটা বিষয়।

পোস্টটি মুছার কারণ জানিয়ে তিনি লেখেন, আমা'র পোস্ট মুছে দেওয়ার কারণ ছিলো কয়েকজন অ'ভিভাবকের চিঠি। তারা লিখেছেন, এই অ'ভিযোগ আসার ফলে ঢালাওভাবে সবার প্রতি আঙ্গুল তুলছে সবাই। এতে বাবা-মা হিসেবে তারা খুবই বিব্রত। একজন তার মে'য়ের বিয়ে স'ম্পর্কিত আলোচনা ভেঙে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে জানিয়েছেন। এই চিঠি পড়ার পর আমি সত্যিই একটু নড়ে উঠি। পরিবারের এই উদ্বেগ কিন্তু বাস্তব। আমি সেটা এড়াতে পারি না।

নির্মাতা যোগ করেন, একটা কথা পরিষ্কার করা দরকার। ফোর্সড সেক্স বা সেক্সুয়াল এক্সপ্লয়টেশনের যে অ'ভিযোগ আসছে, সেটার ত'দন্ত হওয়া উচিত। এই অ'ভিযোগটা আসছে সরাসরি ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীর কাছ থেকে, যেটা বেশ কিছু সাধারণ ছা'ত্রীও সম'র্থন করেছেন। কথা হলো, যদি ত্রিশ হাজার ছা'ত্রীর মধ্যে বিশজনও এর শিকার হয়, সেটা এক জঘন্যতম অরগানাইজড ক্রা'ইম। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এই ভ'য়াবহ অ'প'রাধ চলতে পারে না।

অ'ভিযোগের সঙ্গে জ'ড়িতদের শা'স্তির দাবি জানিয়ে ফারুকী' লিখেছেন, ত'দন্ত করে যদি অ'ভিযোগ সত্য প্রমাণ হয়, তাহলে এর সাথে জড়িতদের কঠিন শা'স্তি দিতে হবে। একইসঙ্গে কলেজ প্রশাসনকেও শা'স্তির আওতায় আনতে হবে। ভবিষ্যতে কিভাবে হলগুলাকে এসব অনাচার মুক্ত করা যায়, সেটার উপরও কাজ করতে হবে। পাশাপাশি এটাও বলা দরকার, এটা ত্রিশ হাজার ছা'ত্রীর বাস্তবতা না। ফলে ঢালাওভাবে মেয়েদের হোস্টেলে এই-ই ঘটে জাতীয় সরলীকরণ বা ফ্যান্টাসিকে যেনো প্রশ্রয় না দেই আম'রা।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!