কেক খেয়ে ২ বোনের মৃ'ত্যু

গাজীপুরে কেক ও পেটিস খেয়ে দুই শি'শুর মৃ'ত্যু হয়েছে। এছাড়াও অ'পর এক শি'শু অ'সুস্থ হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। শি'শু দুইটির ম'রদেহ শহীদ তাজউদ্দীন আহম'দ মেডিকেল কলেজ হাসপাতা'লের ম'র্গে রাখা হয়েছে। আর অ'সুস্থ শি'শুটিকে একই হাসপাতা'লে শি'শু ওয়ার্ডে ভর্তি রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। আজ রোববার (২৯ জানুয়ারি) সালনায় বঙ্গবন্ধু কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইপসা) গেইট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। মৃ'ত শি'শুরা হলেন- আশামনি (৬) ও তার ছোট বোন আলিফা আক্তার (দেড় বছর)। তাদের বাবার নাম আশরাফুল ইস'লাম। তিনি পরিবার নিয়ে সালনা ইপসা গেট এলাকায় ভাড়ায় বসবাস করেন।

অ'পর শি'শু সিয়াম (৬মাস) গুরুতর অ'সুস্থ অবস্থায় গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতা'লে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তার বাবার নাম হিরা মিয়া। তিনিও ওই একই বাড়ির মালিকের বাসায় ভাড়া থাকেন।

মৃ'ত শি'শুদের বাবা আশরাফুল ইস'লাম জানান, সকালে বঙ্গবন্ধু কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইপসা) গেইট এলাকায় সাইফুল ইস'লামের দোকানের খোলা বাজারের তৈরিকৃত পেটিস এবং কেক খান তিনি ও বাচ্চারা। কিছুক্ষণের মধ্যেই পর্যায়ক্রমে শি'শু ও তিনই অ'সুস্থ হয়ে পড়ে। পরে তাদের শহীদ তাজউদ্দীন আহম'দ মেডিকেল কলেজ হাসপাতা'লে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তার বড় মে'য়ে আশামনি ও ছোট মে'য়ে আলিফাকে মৃ'ত ঘোষণা করেন। একইভাবে তাদের ভাড়া বাসার অ'পর শি'শু সিয়ামও অ'সুস্থ হয়ে পড়লে তাকে একই হাসপাতা'লে ভর্তি করা হয়েছে। তবে আশরাফুলের কোনো সমস্যা হয়নি।

শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতা'লের চিকিৎসক মাহমুদা বলেন, বিষক্রিয়ায় শি'শু দুটির মৃ'ত্যু হয়েছে। আরেক শি'শু হিরা মিয়ার ছে'লে সিয়াম চিকিৎসাধীন। তার অবস্থাও আশ'ঙ্কাজনক। মৃ'ত শি'শুদের ম'রদেহ হাসপাতা'লের ম'র্গে রাখা হয়েছে।

গাজীপুর সদর থা'নার এসআই এহতেশাম বলেন, খবর পেয়ে পু'লিশ হাসপাতা'লে এসেছে। ঘটনাটি ত'দন্ত করে দেখা হচ্ছে।

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!